প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার: সংগ্রাম ও বিপ্লবের নাম

প্রীতিলতা একটি নামবিপ্লব ও সংগ্রামেরযে নামটি শুনলে চেতনা মুহূর্তেই থমকে দাড়ায়কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই চেতনা তার তন্দ্রা ভেঙ্গে বিদ্রোহ করে বলে, মানুষের জন্য দেশের জন্য কিছু একটা করা দরকারএ এক অদ্ভুত অনুভূতিঅবশ্য উপলব্দি করার মত চেতনা থাকতে হবেযে মানুষের চেতনায় দেশপ্রেম নেই, মানবতা-মনুষ্যত্ববোধ নেই, সে প্রীতিলতা কেন; কোনো সংগ্রামী ও বিপ্লবীকে বুঝতে পারবে নাচট্টগ্রামের সূর্য সেন ও প্রীতিলতা ছিল ব্রিটিশরাজের আতঙ্ক।…

বিস্তারিত

মেহনতী মানুষের শোষণ্মুক্তির কান্ডারী কমরেড জ্ঞান চক্রবর্তী

মেহনতী মানুষের শোষণ্মুক্তির কান্ডারী কমরেড জ্ঞান চক্রবর্তী কৃষক-শ্রমিক-মেহনতি  মানুষের শোষণমুক্তির আন্দোলনে যে সকল মানুষ আজীবন লড়াই-সংগ্রাম করে গেছেন, তাঁদের মধ্য কমরেড জ্ঞান চক্রবর্তী অন্যতমবিত্ত-বৈভবের মোহ তাঁকে কখনো স্পর্শ করতে পারে নিতিনি বাবার অঢেল ধন-সম্পদ ও যশ-খ্যাতি ত্যাগ করে মেহনতি মানুষের কাঁতারে এসে তাদেরই একজন হয়ে সাধারণ জীবন যাপন করেছেনগড়ে তুলেছেন শোষণমুক্তির জোরালো লড়াই-সংগ্রাম।…

বিস্তারিত

ইলা মিত্রঃ তেভাগা ও শোষণমুক্তি আন্দোলনের কিংবদন্তি

রাজশাহী আদালতে ইলা মিত্র ইংরেজিতে লিখিত যে জবানবন্দি দিয়েছিলেন তা থেকে তাঁর ওপর যে অত্যাচার হয়েছে সে বিষয়ে জানা যায়তিনি তাঁর জবানবন্দিতে বলেন, বিগত ০৭.০১.৫০ তারিখে আমি রোহনপুর থেকে গ্রেপ্তার হই এবং পরদিন আমাকে নাচোল থানা হেড কোয়ার্টারে পাঠানো হয়কিন্তু পথে পাহারাদার পুলিশরা আমার ওপর অত্যাচার করেনাচোলে ওরা আমাকে একটা সেলের মধ্যে রাখেসেখানে একজন পুলিশের দারোগা আমাকে এ মর্মে ভীতি প্রদর্শন করে যে, আমি যদি হত্যাকান্ড সম্পর্কে সম্পূর্ণ স্বীকারোক্তি না করি, তাহলে ওরা আমাকে উলঙ্গ করবেআমার যেহেতু বলার মত কিছু ছিল না, কাজেই তারা আমার পরনের সমস্ত কাপড় চোপড় খুলে নেয় এবং সম্পূর্ণ উলঙ্গ অবস্থায় সেলের মধ্যে আটকে রাখেআমাকে কোন খাবার দেওয়া হয়নি।…

বিস্তারিত

ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের লড়াকু সৈনিক বাঘা যতীন

বাঘা যতীন একটি নামএকজন বিপ্লবীর নাম মানুষের স্বাধীনতা, অধিকার ও শোষণমুক্তির আন্দোলন যতদিন চলবে ততদিন তিনি বেঁচে থাকবেন সংগ্রাম ও বিপ্লবী মানুষের মাঝেসংগ্রামীরা, বিপ্লবীরা কখনো মরে নাবেঁচে থাকে যুগ-যুগান্তরেমানুষের চেতনায় ও কর্মে  জন্মে ছিলেন ১৮৭৯ সালের ৭ ডিসেম্বরকুষ্টিয়া জেলার কয়া গ্রামেতিনি বেঁচে ছিলেন মাত্র ৩৬ বছরএই ছোট জীবনে তিনি তাঁর জীবন-সংগ্রাম দিয়ে ইতিহাসের পাতায় অমর হয়ে আছেন।…

বিস্তারিত

রাসবিহারী বসু : ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম বিপ্লবী

ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম বিপ্লবী রাসবিহারী বসুতিনি আজাদ হিন্দ ফৌজএর প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন ভারতের বাইরে জাপানে আজাদ হিন্দ ফৌজ গঠন করেনতৎকালীন ব্রিটিশ গভর্ণর জেনারেল এবং ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জকে বোমা হামলা করে মারার প্রচেষ্টার সাথে তিনি যুক্ত ছিলেনএ ছাড়া গদর ষড়যন্ত্রের সাথে তিনি যুক্তছিলেনভারতের সেনাবাহিনীতে বিপ্লবীদের অনুপ্রবেশ করিয়ে ১৯১৫ খ্রিষ্টাব্দের ফেব্রুয়ারি মাসে সমগ্র ভারতব্যাপী একটি বিদ্রোহ করার পরিকল্পনা করেছিলেন।…

বিস্তারিত

পূর্ণেন্দু দস্তিদারঅগ্নিযুগের বিপ্লবী। সশস্ত্র বিপ্লবী। কিংবদন্তি বিপ্লবী মাস্টারদা সূর্য সেনের বিপ্লবী সহযোদ্ধা। তিনি ছিলেন মাস্টারদা সূর্য সেনের বিপ্লবী স্টুডেন ক্যাডারও। তাঁর কাজ ছিল তরুণ যুবক ও ছাত্রদেরকে বিপ্লবী দলে এনে বিপ্লবীমন্ত্রে দীক্ষিত করা। এমনকি নিজ দলের বিপ্লবীদেরকেও তিনি বিপ্লবী কর্মকাণ্ডের বিভিন্ন কলা-কৌশল বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিতেন।…

বিস্তারিত

 

আজীবন সংগ্রামী, সর্বস্ব ত্যাগী, গরিব মেহনতি মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু কমরেড রতন সেনকে ১৯৯২ সালের ৩১শে জুলাই খুলনা ডিসি অফিসের সামনে ঘাতকরা নির্মমভাবে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। কমরেড রতন সেনের ৫০ বছরের রাজনৈতিক জীবনের ২২ বছর কেটেছে জেল অথবা আত্মগোপনে। জীবনের মূল্যবান সময় যৌবনের ১৭টি বছর কেটেছে পাকিস্তানের কারাগারে।…

বিস্তারিত

এই বাংলায় জন্মেছিলেন এক বিশ্ববরেণ্য বিপ্লবী। সবাই তাঁকে ডাকতো বাবু নামে। তাঁর আসল নাম মুজফফর আহমদ। জীবন কর্ম যাকে বাঁচিয়ে রাখবে বহুকালব্যাপী।

বঙ্গোপসাগরের একটি দ্বীপের নাম সন্দ্বীপ। মেঘনা মোহনার সাগর সঙ্গমে এর অবস্থান। এটি তিন হাজার বছরের আবাদ বলে ধারণা করা হয়। প্রাচীন সন্দ্বীপের অবস্থান ছিল দক্ষিণ ফরিদপুরের লাগোয়া মেঘনা বক্ষে। লাগাতার ভাঙা-গড়ার ফলে এ দ্বীপের ভৌগলিক অবস্থানের পরিবর্তণ এবং আয়তনের হ্রাস-বৃদ্ধি ঘটে চলেছে।…

বিস্তারিত

কমিউনিস্ট পার্টি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সদস্য খ্যাতিমান হোমিও চিকিৎসক কমরেড স্বপন চক্রবর্তী আকস্মিকভাবেই চিরবিদায় নিলেন। গত ৯ জানুয়ারি ২০০৯ বিকেল ৪টা ১৫ মিনিটে। ৮ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টায় দীর্ঘদিন ক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ করে চলে গেলেন রাঙ্গামাটি জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক, রাঙ্গামাটির বাম-প্রগতিশীল আন্দোলনের তত্ত্বাবধায়ক জননেতা কমরেড দিলিপ দেব।…

বিস্তারিত

টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলার বিশ্বাস বাথুলী গ্রামের এক ধনাঢ্য ও সম্ভ্রান্ত পরিবারে নারায়ণ বিশ্বাস ১৯০৮ সালে জন্মগ্রহণ করেনবিশ্বাস পরিবারের নামেই এ গ্রামের নামকরণ করা হয় বিশ্বাস বাথুলীগ্রামের তিন-চতুর্থাংশ সম্পত্তির মালিক ছিল বিশ্বাস পরিবারনারায়ণ বিশ্বাসের ঠাকুর্দা জগ দাস বিশ্বাস তালুক ক্রয় করে পরিবারের অর্থনৈতিক ভিত্তি শক্তিশালী করেনজগ দাস বিশ্বাস পৈত্রিক সূত্রেও তালুক পেয়েছিলেনসব মিলে বিশ্বাস পরিবারের তালুক ছিল পাঁচটিনারায়ণ বিশ্বাসের বাবা অবিনাশ বিশ্বাস ছিলেন তাই একজন ধনাঢ্য জোতদার ব্যক্তি।…

বিস্তারিত
© 2017. All Rights Reserved. Developed by AM Julash.

Please publish modules in offcanvas position.